নির্দেশনা

এই সমন্বিত প্রিপারেশনটি অস্টিওপরোসিস, অস্টিওমেলাসিয়া, রিকেট্স, টিটানি এবং প্যারাথাইরয়েডের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়। সাপ্লিমেন্ট হিসেবে, পুষ্টির পর্যাপ্ততা নিশ্চিত করার জন্য প্রায়শই কিছু কিছু অবস্থায় যেমন- গর্ভাবস্থা ও স্তন্যদানকালে, অস্টিওজেনেসিস ও দাঁতের গঠনে (সুনির্দিষ্ট চিকিৎসার পাশাপাশি) এবং এন্টি-সিজার থেরাপির সাথে ব্যবহৃত হয়। এটি ক্রনিক রেনাল ফেইলিউরের ক্ষেত্রে রুটিন সাপ্লিমেন্ট হিসাবে এবং ফসফেট বাইন্ডার হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

থেরাপিউটিক ক্লাস

Specific mineral & vitamin combined preparations

ফার্মাকোলজি

ইহা ক্যালসিয়াম কার্বোনেট ও ভিটামিন ডি৩ (কোলিক্যালসিফেরল)-এর একটি প্রিপারেশন। ক্যালসিয়াম আমাদের শরীরের অনেক স্বাভাবিক কাজের জন্য প্রয়োজনীয়, তবে হাড়ের গঠন ও মেইনটেনেন্সের জন্য এটি বিশেষভাবে দরকারি। ভিটমিন ডি৩ ক্যালসিয়ামের পরিশোষণ ও পূণঃপরিশোষণে সহায়তা করে। এছাড়াও ভিটামিন ডি৩ হাড় গঠনে উদ্দীপনা তৈরী করে। ক্লিনিক্যাল স্টাডিতে দেখা যায় যে, ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ডি৩ হাড়ের বৃদ্ধিতে এবং অস্টিওপরোসিস ও হাড় ভেঙ্গে যাওয়া প্রতিরোধে যুগপৎভাবে সহায়তা করে।

মাত্রা ও সেবনবিধি

ক্যালসিয়াম ৫০০ মি:গ্রা: এবং ভিটামিন ডি৩ ২০০ আইইউ ট্যাবলেট: দৈনিক ২ টি ট্যাবলেট বা ১ টি ট্যাবলেট, দিনে ২ বার। ভালভাবে পরিশোষিত হওয়ার জন্য এটি খাবারের সাথে বা খাবারের পরপর গ্রহণ করা উচিত।

ক্যালসিয়াম ৫০০ মি:গ্রা: এবং ভিটামিন ডি৩ ৪০০ আইইউ ট্যাবলেট: ১ টি ট্যাবলেট, দিনে ২ বার। ভালভাবে পরিশোষিত হওয়ার জন্য এটি খাবারের সাথে বা খাবারের পরপর গ্রহণ করা উচিত।

ঔষধের মিথষ্ক্রিয়া

ক্যালসিয়াম, এলুমিনিয়াম বা ম্যাগনেসিয়াম-সমৃদ্ধ এন্টাসিড ও অন্যান্য ক্যালসিয়াম সাপ্লিমেন্ট, ক্যালসিট্রিওল ও অন্যান্য ভিটামিন ডি৩ সাপ্লিমেন্ট, ডিগক্সিন, টেট্রাসাইক্লিন, ডক্সিসাইক্লিন, মিনোসাইক্লিন বা অক্সিটেট্রাসাইক্লিনের সাথে এটির মিথস্ক্রিয়তার সম্ভাবনা আছে।

প্রতিনির্দেশনা

এটি হাইপারক্যালসেমিয়া, হাইপারথাইরয়ডিজম, রেনাল ক্যালকুলি, নেফ্রোলিথিয়াসিস এবং জলিন্জার-ইলিসন সিনড্রোম-এর ক্ষেত্রে প্রতিনির্দেশিত।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

এটি সাধারণত সুসহনীয়। বমিবমি ভাব বা বমি, পাকস্থলীর মোচড়ানো, মুখ শুকিয়ে যাওয়া, তৃষ্ণা বৃদ্ধি পাওয়া অথবা যদি মূত্রের পরিমাণ বৃদ্ধি পায় তবে চিকিৎসককে জানাতে হবে। কোষ্ঠকাঠিন্য মাঝে মাঝে হতে পারে।

সতর্কতা

হৃদযন্ত্রের সমস্যা বা বৃক্কীয় সমস্যা থাকলে এটির ব্যবহারে সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত।

শিশু ও বয়স্কদের ক্ষেত্রে ব্যবহার

গর্ভাবস্থায় ও স্তন্যদানকালে এই সমন্বিত প্রিপারেশনটি চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যবহার করা উচিত।

মাত্রাধিক্যতা

মাত্রাধিক্যতার লক্ষণগুলো হচ্ছে বমিবমি ভাব বা বমি, তীব্র তন্দ্রাচ্ছন্নতা, মুখ শুকিয়ে যাওয়া, ক্ষুধা হ্রাস পাওয়া, ধাতব স্বাদ, পাকস্থলীর মোচড়ানো, ডায়রিয়া, মাথাব্যথা, কোষ্ঠকাঠিন্য ইত্যাদি।

সংরক্ষণ

আলো ও তাপ থেকে দূরে শুষ্ক স্থানে রাখুন। শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।