Herbal ন্যাটল্যাক্স এফারভেসেন্ট পাউডার

(৩.৫ গ্রাম+৭.৫ মিঃগ্রাঃ)/৫.৩৮ গ্রাম
100 gm container: ৳ 400.00

উপাদান

প্রতি চামচ (৫.৩৮ গ্রাম) এফারভেসেন্ট পাউডারে কার্যকরী উপাদান হিসেবে রয়েছে ৩.৫ গ্রাম সিলিয়াম ফাইবার এবং সেনা নির্যাস যা ৭.৫ মিগ্রা সেনােসাইড বি এর সমতুল্য।

নির্দেশনা

ইহা নিম্নোক্ত উপসর্গে নির্দেশিত-
  • কোষ্ঠকাঠিন্য
  • অর্শ বা পাইলস
  • শয্যাশায়ী রােগীদের অন্ত্রের কার্যকারিতা নিয়মিত করে।

ফার্মাকোলজি

এই পাউডারে সিলিয়াম বা ইসবগুলের পাউডার (প্লান্টাগাে ওভাটা) এবং সেনা নির্যাস (ক্যাসসিকা অ্যানগুসটিফোলিয়া) এর উপস্থিতির কারণে কোষ্ঠকাঠিন্য চিকিৎসায় বিশেষভাবে কার্যকারী। এইএফারভেসেন্ট পাউডার পানির সংমিশ্রণে কমলা রঙের ঘন আঁশযুক্ত ও কমলার স্বাদযুক্ত পানীয় তৈরি করে। সিলিয়ামে রয়েছে মিউসিলেজ যা বাল্ক-ফরমিং ল্যাক্সেটিভ হিসেবে কাজ করে এবং সেনা নির্যাসে সেনােসাইড বি হিসেবে রয়েছে হাইড্রোক্সিঅ্যানথ্রাসিন গ্লাইকোসাইড যা স্টিমিউলান্ট ল্যাক্সেটিভ হিসেবে কাজ করে কোষ্ঠকাঠিন্য ও পেটের সমস্যা নিরাময় করে। এই বিশেষ প্রস্তুতিটি অন্ত্রের বিচলন এবং পানির শােষণ বাড়িয়ে দেয়ার মাধ্যমে অন্ত্রের কার্যকরিতা নিয়মিত করে। ইহা সহজে বিচলনযােগ্য নরম মল তৈরির মাধ্যমে অর্শ বা পাইলস, রেক্টাল সার্জারী এবং কোলন ক্যান্সার এর রােগীদের ক্ষেত্রে ব্যথা নিরাময় করতে সাহায্য করে। এটি পাকস্থলী ও অন্ত্রের মিউকাস এর পিচ্ছিলতা আরাে বাড়িয়ে দিয়ে পেটের পীড়া ও আলসার নিরাময়ে সাহায্য করে। ইহা রক্তে কোলেস্টেরল ও গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রনে সাহায্য করে।

ঔষধের মাত্রা

প্রাপ্ত বয়স্ক এবং ১২ বছর বয়সের উপরের বাচ্চাদের ক্ষেত্রে: ১-২ চামচ পাউডার ১৫০ মিলি পানিসহ রাতে অথবা চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী নির্দেশিত। ইহা গ্রহণের পর অতিরিক্ত এক গ্লাস পানি গ্রহণ করা ভালাে। ফলের রস, দুধ এবং উষ্ণ পানীয়র সাথে ইহা গ্রহণ করা যেতে পারে। অন্য ঔষধ গ্রহণের ১/২ থেকে ১ ঘন্টার মধ্যে ইহা গ্রহণ করা উচিত নয়। ২ সপ্তাহের অধিক সময় ব্যবহারের ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে।

সেবনবিধি

  • সরবরাহকৃত চামচ এর সাহায্যে ১-২ চামচ পরিমাণ এফারভেসেন্ট পাউডার নিন।
  • একটি খালি গ্লাসে সম্পূর্ণ চামচ পাউডার ঢালুন।
  • গ্লাসে ১৫০ মিলি পানি মিশিয়ে নাড়ুন এবং যত দ্রুত সম্ভব পান করুন।

ঔষধের মিথষ্ক্রিয়া

দীর্ঘকাল ব্যবহারের পটাসিয়ামের স্বল্পতা হতে পারে যা কার্ডিয়াক গ্লাইকোসাইডের কার্যকারিতাকে বাড়িয়ে দিতে পারে এবং এন্টিএরিদমিক ঔষধের কার্যকারিতাকে প্রভাবিত করতে পারে। থায়াজাইড ডাইইউরেটিক্স এবং করটিকোআড্রেনাল স্টেরয়েড এর সমব্যবহারে পটাসিয়ামের স্বল্পতা বৃদ্ধি পেতে পারে। প্রয়ােজনে। ইনসুলিন এর মাত্রা কমিয়ে পুনঃনির্ধারণ করা যেতে পারে।

প্রতিনির্দেশনা

যে সকল রােগীদের অন্ত্রের সংকীর্ণতা বা প্রতিবন্ধকতা, অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস, অন্ত্রের প্রদাহজনিত সমস্যা, মলদ্বারে প্রদাহ এবং অ্যাপেন্ডিসাইটিস রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে প্রতিনির্দেশিত। ১২ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের ক্ষেত্রে নির্দেশিত নয়।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

কদাচিৎ এলার্জিক প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। দীর্ঘকাল ব্যবহারের কারণে ইলেক্ট্রোলাইটের (বিশেষভাবে পটাসিয়াম) এর স্বল্পতা হতে পারে যা ঔষধের ব্যবহার বন্ধে সেরে যায়।

গর্ভাবস্থায় ও স্তন্যদানকালে

গর্ভাবস্থা ও স্তন্যদানকালে ব্যবহার নির্দেশিত কিন্তু গর্ভকালীন প্রথম তিন মাসের ক্ষেত্রে বিশেষ সতর্কতা গ্রহন করা উচিত।

মাত্রাধিক্যতা

মাত্রাধিক ব্যবহারে শরীরে ইলেক্ট্রোলাইট ও পানির ভারসাম্য ব্যহত হতে পারে।

থেরাপিউটিক ক্লাস

Bulk-forming laxatives, Herbal and Nutraceuticals

সংরক্ষণ

আলাে ও আর্দ্রতা থেকে দূরে, ঠাণ্ডা ও শুষ্ক স্থানে সংরক্ষন করুন। সকল ঔষধ শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।