নির্দেশনা

বিসোপ্রোলল নিম্নোক্ত উপসর্গে নির্দেশিত-
  • উচ্চ রক্ত চাপ
  • এনজিনা
  • মাঝারী থেকে তীব্র হার্ট ফেইলিওর

ফার্মাকোলজি

বিসোপ্রোলল হেমিফিউমারেট একটি সিলেক্টিভ বিটা১ ব্লকার। এটি অন্যান্য বিটা ব্লকারের তুলনায় বিটা১ রিসেপ্টরের প্রতি সর্বোচ্চ আসক্তি দেখায়। এটি হার্ট ও ভাস্কুলার মাংসপেশীর বিটা১ এড্রিনার্জিক রিসেপ্টরকে ব্লক করার মাধ্যমে হার্ট রেট, কার্ডিয়াক আউটপুট কমায়, ফলে আর্টেরিয়াল উচ্চ রক্ত চাপ কমে যায়। বিটা১ ব্লকার বিশেষতঃ নন সিলেক্টিভ ব্লকার দ্বারা চিকিৎসা করলে রোগীর লিপিড মেটাবলিজম ব্যাহত হয়। কিন্তু বিসোপ্রোলল দ্বারা দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসায় কোলেস্টেরলের মাত্রা বিশেষ করে কার্ডিওপ্রোটেকটিভ ঐউখ কোলেস্টেরলের মাত্রার কোন পরিবর্তন হয় না।

মাত্রা ও সেবনবিধি

উচ্চ রক্ত চাপ: রোগীদের প্রয়োজন অনুযায়ী বিসোপ্রোললের মাত্রা নির্ধারন করা উচিত। প্রাথমিক ভাবে ৫ মিঃগ্রাঃ করে দিনে একবার। কিছু কিছু রোগীর ক্ষেত্রে ২.৫ মিঃগ্রাঃ প্রাথমিক মাত্রা হতে পারে। যদি ৫ মিঃগ্রাঃ দিয়ে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করা না যায়, তবে সেবনমাত্রা বৃদ্ধি করে দিনে ১০ মিঃগ্রাঃ এবং তারপর প্রয়োজন হলে দিনে সর্বোচ্চ ২০ মিঃগ্রাঃ পর্যন্ত দেওয়া যেতে পারে।

এনজিনা: সাধারণত ৫-১০ মিঃগ্রাঃ দিনে একবার, সর্বোচ্চ মাত্রা ২০ মিঃগ্রাঃ দিনে একবার।

মাঝারী থেকে তীব্র হার্ট ফেইলিওর: প্রাথমিকভাবে ১.২৫ মিঃগ্রাঃ করে দিনে একবার (সকাল বেলা) ১ সপ্তাহ পর্যন্ত। যদি সহনীয় হয় তবে প্রয়োজন হলে সেবনমাত্রা বৃদ্ধি করে ২.৫ মিঃগ্রাঃ করে দিনে একবার (সকাল বেলা) ১ সপ্তাহ পর্যন্ত এবং পরে ৩.৭৫ মিঃগ্রাঃ করে দিনে একবার ১ সপ্তাহ পর্যন্ত, পরবর্তীতে ৫ মিঃগ্রাঃ করে দিনে একবার ৪ সপ্তাহ এবং ৭.৫ মিঃগ্রাঃ করে দিনে একবার ৪ সপ্তাহ এবং তারপর ১০ মিঃগ্রাঃ করে দিনে একবার, সর্বোচ্চ মাত্রা ১০ মিঃগ্রাঃ দিনে একবার করা যেতে পারে।

ঔষধের মিথষ্ক্রিয়া

বিসোপ্রোলল অন্যান্য বিটা ব্লকার জাতীয় ঔষধের সাথে ব্যবহার করা উচিত নয়।

প্রতিনির্দেশনা

যে সকল রোগীর কার্ডিওজেনিক শক, ওভার্ট হার্ট ফেইলিওর, সেকেন্ড ও থার্ড ডিগ্রী A-V ব্লক, Right ventricular failure, পালমোনারী হাইপারটেনশন এবং সাইনাস ব্রাডিকার্ডিয়া আছে তাদের ক্ষেত্রে এটি প্রতিনির্দেশিত।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

গ্যাস্ট্রোইনটেসটিনাল ক্রিয়ায় ব্যাঘাত, ব্রাডিকার্ডিয়া, নিম্নরক্তচাপ, মাথাব্যথা, ক্লান্তি, ঘুমের ব্যাঘাত, ঝিঁমুনী, মাথাঘোরা, থ্রম্বোসাইটোপেনিয়া, দৃষ্টির ব্যাঘাত, চুলপড়া ইত্যাদি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে।

গর্ভাবস্থায় ও স্তন্যদানকালে

গর্ভাবস্থায় বিসোপ্রোললের নিরাপত্তা এখনও প্রতিষ্ঠিত হয়নি। স্তন্যদানকালে এর ব্যবহার সম্পর্কিত কোন তথ্য নেই।

সতর্কতা

দীর্ঘদিন বিসোপ্রোলল গ্রহণের ক্ষেত্রে বৃক্ক, যকৃত এবং হেমাটোপয়েটিক কার্যকরিতা নির্দিষ্ট বিরতি দিয়ে নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করা উচিত।

থেরাপিউটিক ক্লাস

Anti adrenergic agent (Beta blockers), Beta-adrenoceptor blocking drugs, Beta-blockers

সংরক্ষণ

আলো ও তাপ থেকে দূরে শুষ্ক স্থানে রাখুন। শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।