হারবাল কফ সিরাপ [Adhatoda Vasica]

উপাদান

প্রতি ৫ মিঃলিঃ সিরাপে রয়েছে নিম্নলিখিত ভেষজ সমূহের নির্যাস-
  • অ্যাডাটোডা ভেসিকা ০.৬৮ গ্রাম
  • পিপার লংগাম ০.১৪ গ্রাম
  • গ্লাইসিরিজা গ্ল্যাবরা ৬.৭৮ মি.গ্রা.
  • ত্রিকটু (জিনজিবার অফিসিনাল, পিপার নিগ্রাম) ২০.৩৪ মি.গ্রা.
  • টারমিনালিয়া চেবুলা ৭৩.২৪ মি.গ্রা.
  • ভিটিস ভিনিফেরা ০.১৪ গ্রাম
  • অ্যাকোরাস ক্যালামাস ৬.৭৮ মি.গ্রা.
  • সস্যুরিয়া লাপ্পা ৬.৭৮ মি.গ্রা.
  • সিজাইজিয়াম এরোমেটিকাম ৬.৭৮ মি.গ্রা.
  • ত্রিজাতক (সিনামোমাম টামালা সিনামোমাম জিলেনিকাম, ইলেট্টারিয়া কারডামোমাম) ২০.৩৪ মি.গ্রা.
  • পিসটাছিয়া ইন্টিজেরিমা ৬.৭৮ মি.গ্রা.
  • মাইরিকা ন্যাগি ৬.৭৮ মি.গ্রা.
  • উডফোরডিয়া ফ্রুটিকোসা ১.১৪ মি.গ্রা.

নির্দেশনা

এই হারবাল সিরাপ বুকের ভিতর জমে থাকা কফ অপসারণ করে। শুষ্ক কাশি নিরাময় করে। ফুসফুসের দুর্বলতা ও গলার স্বরভঙ্গ রোগ উপশম করে।

বিবরণ

এই সিরাপ বিভিন্ন ভেষজ উদ্ভিদের সংমিশ্রণে তৈরী।  এই উদ্ভিদগুলো বহুকাল ধরে সর্দি-কাশি ও ঠান্ডা চিকিৎসায় ব্যবহার হয়ে আসছে। এই সিরাপ অনেক দিনের পুরাতন কাশি ভাল করে।  এটি শিশু ও প্রাপ্ত বয়স্ক সবার জন্য উপকারী। ডিভাস সিরাপ সেবনে ঝিমুনী আসে না। প্রচলিত আর সব কফ সিরাপের মত এটি সেবনে মুখের শুষ্কতা ও কোষ্ঠকাঠিন্য দেখা দেয় না।

ফার্মাকোলজি

  • অ্যাডাটোডা ভেসিকা (বাসক): অনেক দিনের পুরাতন কাশি ভাল করে ।  ফুসফুসের খিচুনি দূর করে ।  বুকের ভিতরের জমে থাকা কফ পাতলা ও বের হবার উপযোগী করে ।  
  • পিপার লংগাম (পিপুল): ঠান্ডা, এলার্জি, হাঁপানি ও গলা ভাঙ্গা উপশম করে ।
  • গ্লাইসিরিজা গ্ল্যাবরা (যষ্ঠিমধু): যে কোন প্রদাহের বিপরীতে কাজ করে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় ।  কফ বের হতে সাহায্য করে ।  গলার স্বরথলি পরিষ্কার রাখে ।  
  • জিনজিবার অফিসিনাল (শুন্টি): এটি এন্টিহিস্টামিন উপাদান সমৃদ্ধ ।  সব ধরনের ঠান্ডা প্রতিকার করে ।
  • পিপার নিগ্রাম (গাোলমরিচ): এটি ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাক ধ্বংস করে; প্রদাহ নিরাময় করে ।
  • টারমিনালিয়া চেবুলা (হরিতকী): এটি শরীর সুস্থ রাখতে সহায়তা করে ।  ফুসফুস সহ শরীরের সকল কোষ - কলায় এটি উপকারী ভূমিকা রাখে ।
  • ভিটিস ভিনিফেরা (কিসমিস): কফ নিবারক ও সাধারণ বলকারক ।
  • অ্যাকোরাস ক্যালমাস (বচ): ফুসফুসের ঝিল্লি প্রদাহ ও জ্বর নিরাময় করে ।
  • সস্যুরিয়া লাপ্পা (কুড়): এই মূলের নির্যাসে আছে কার্যকর জীবাণুনাশক উপাদান ।  হাঁপানি বা শ্বাসকষ্টের তীব্রতা কমায় ।  
  • সিজাইজিয়াম এরোমেটিকাম (লবঙ্গ): শ্বাসতন্ত্রের নানা রোগ নিরাময় করে ।  নিশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর করে ।
  • সিনামোমাম জিলেনিকাম (দারুচিনি): এটি ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাক সংক্রমণ রোধ করে এবং পচন বিরোধী উপাদান রূপে কাজ করে।
  • ইলেট্টারিয়া কারডামোমাম (এলাচ): এটি স্নিগ্ধকারক । ফুসফুস থেকে সর্দি - কফ বের করতে কার্যকর ।
  • সিনামোমাম টামালা (তেজপাতা): এটি স্নায়ু দুর্বলতা ও পেট ফাপায় কাজ করে ।
  • পিসটাছিয়া ইন্টিজেরিমা (কাকরাশৃঙ্গী): এটি কফ নিঃসারক এবং শ্বাসতন্ত্রের নানা রোগ নিরাময় করে ।
  • মাইরিকা ন্যাগি (কটফল): গলার প্রদাহ নিরাময় করে ।
  • উডফোর্ডিয়া টিকোসা (ধাইফুল): পচন বিরােধী উপাদান এবং স্নিগ্ধ কার্যকর ক্ষমতার জন্য কাশি নিরাময়ে অত্যন্ত উপকারী ।
  • তুলসী নির্যাস ও অন্যান্য উপাদান: ঠান্ডা ও সর্দি কাশির তীব্রতা কমানোর জন্য ডিভাস সিরাপে তুলসী নির্যাস এবং অন্যান্য উপকারী ভেষজের সংমিশ্রণ করা হয়েছে ।

মাত্রা ও সেবনবিধি

১২ বছরের কম বয়সী শিশু: ১-২ চা চামচ (৫-১০ মিঃলিঃ) দিনে ২-৩ বার।
প্রাপ্ত বয়স্ক: ৩ চা চামচ (১৫ মিঃলিঃ) দিনে ২-৩ বার।
ভাল ফল পেতে হালকা গরম পানি মিশিয়ে ব্যবহার করুন।

ঔষধের মিথষ্ক্রিয়া

এ যাবৎ কোন উল্লেখযোগ্য মিথস্ক্রিয়া লক্ষ্য করা যায়নি।

প্রতিনির্দেশনা

এখনও পর্যন্ত কোন বিৰূপ প্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। এটির কোন উপাদানের প্রতি অতিসংবেদশীলতা দেখা দিলে ব্যবহার করা যাবে না।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

এই সিরাপে ব্যবহৃত প্রতিটি ভেষজ উদ্ভিদ নিরাপদ ও সুসহনীয়। অতিরিক্ত পরিমাণে খেলে বমি বা পাতলা পায়খানা হতে পারে।

গর্ভাবস্থায় ও স্তন্যদানকালে

এই সিরাপ গর্ভাবস্থায় সেবন সম্পর্কে কোন নির্দিষ্ট তথ্য নেই। তাই গর্ভাবস্থায় সতর্কতার সাথে ব্যবহার  করা বাঞ্ছনীয়।

থেরাপিউটিক ক্লাস

Herbal and Nutraceuticals

সংরক্ষণ

শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন। সরাসরি আলো থেকে দূরে, ঠান্ডা ও শুকনা জায়গাতে রাখুন।